ঘড়িপ্রেমীদের জন্য স্বল্প দামে ৫টি আকর্ষণীয় ও টেকসই ঘড়ির তালিকা


0

ঘড়ি নিত্যদিনের সঙ্গী। প্রথম যখন
ঘড়ি মানুষের হাতের মুঠোয় আসে তখন সময়ের থেকেও কারো হাতে ঘড়ি থাকাটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ঘড়ি ছিল সামাজিকভাবে আপনি স্বীকৃত যে আপনি একজন অভিজাত শ্রেনির লোক। ধীরে ধীরে ঘড়ির প্রয়োজনীয়তা এর তাৎপর্য অনেক বৃদ্ধি পায় এবং কালক্রমে এটি শুধু
অভিজাতশ্রেনির হাতে শোভা না পেয়ে দিন মজুর থেকে শুরু করে ছোটখাটো ব্যবসায়ী , অফিস কেরানির হাতে গিয়ে পৌছায়। এখানে অবাক হবার কিছুই নেই যে এখনো মানুষ কত অর্থের মালিক সেটা তার ঘড়ি দেখে
বোঝা জেতে পারে, কেননা বর্তমান সময়ে ২০০ টাকা
থেকে শুরু করে ১৬ লাখ টাকা কিংবা আলাদা নিজের মন মত বানিয়ে নিতে গেলে আরো অনেক বেশি
দামের ঘড়িও বাজারে পাওয়া যাবে।

AliExpress

ঘড়ি কেনার ক্ষেত্রে সকলেই মনে করতে পারে যে পকেটে প্রচুর টাকা থাকতে হবে এ জন্য ঘড়ি কেনার আগে অনেকেই কিছু টাকা সঞ্চয় করতে পছন্দ করে কারণ ধারণা হল বেশি অর্থ থাকলে ভালো ঘড়ি কিনতে পারবে।  তবে বাস্তবতা হ’ল ভাল ঘড়ি যা সত্যই খুব ভাল মানের এটি খুঁজে পেতে কিছু কাজ করা প্রয়োজন। এর জন্যে আওবার আগে যা প্রয়োজন তা হল আপনি কোন ধরনের ঘড়ি কিনতে চান সেটা নির্ণয় করা। অর্থাৎ বেল্ট এর ঘড়ি নাকি চেইন এর ঘড়ি। তাছারা এটি ব্যবহার করবে কোথায়? অফিসে নাকি পারটিতে? আসল ঘড়ি নাকি নকল বা কপি ঘড়ি? এসব কিছু ঠিক করে ঘড়ি কেনা প্রয়োজন। এসব বিষয় আগে থেকে মাথায় রেখে ঘড়ি ক্রয় করতে গেলে যত টাকাই থাকুক না কেন ঘড়ি কেনা সম্ভব। আজকে আমরা কয়েকটি সস্তা, মানসম্মত এবং আসল ঘড়ি সম্পর্কে জানব।

১. স্কেমেই ১১৮১ আল্ট্রা

আপনি স্বল্প মূল্যে অফিসিয়াল ফরমাল ঘড়ি নিতে চান তাহলেপানার জন্যেই অপেক্ষা করছে স্কেমেই ১১৮১ আল্ট্রা ঘড়িটি। ঘড়িতি চাইনিজ কোম্পানির তবে এর সবচেয়ে বিশেষ দিক হল ঘড়িতি বেশ হালকা এবং পাতলা। এর ডায়াল বেশ চিকন। বেল্ট একদম গাঢ় কালো বর্ণের। বেল্ট টিও খুবই চিকন করেছে যা জেকনব হাতের সাথে মানাবে এমনকি যাদের হাতের কবজি চিকন তাদের জন্যও। কালোর মধ্যে সাদা ডায়াল। সব ঘড়িতে তিনটি কাটা থাকে। একটি ঘণ্টার, একটি মিনিটের এবং একটি সেকেন্ডের তবে এটি একটু ভিন্ন। এই ঘড়িতে
সেকেন্ডের কাটা নেই। শুধু দুইটি কাটাই রয়েছে। ঘড়িটির মূল্যও বেশ কম। মাত্র ৮৫০ টাকা খরচ
করলেই পেয়ে যেতে পারেন এ ঘড়িটি।

২. সেভেন ফ্রাইডে

Jomashop

এই ঘড়িটিও বেশ চমৎকার। হাতে পরলে দারুন লাগে। এর ভালো বৈশিষ্ট্য হল এটির বেল্ট। এর বেল্ট ফাইবারের তৈরি জার জন্যে নষ্ট হবার আশঙ্কা খুব কম। জারা খুবই সচারাচর ঘড়ি ব্যবহার করেন এবং অনেকগুলো ঘড়ি নিজের ব্যক্তিগতভাবে জমা করতে চান তারা একটি ফাইবারের বেল্ট এর ঘড়ি রাখতেই পারেন। ঘড়িটির মূল্য হবে ৬৫০ টাকা মাত্র।

৩. কেইডম্যান

Daraz

স্বল্প মুল্য দেখতে সুন্দর টিকে ভালো এমন ঘড়িগুলোর মধ্যে কেইডম্যান অন্যতম। এর সব ধরনের ঘড়িই বাজারে পাওয়া জায়। যেমন স্পোর্টস ঘড়ি থেকে শুরু করে সেমি ফরমাল পর্যন্ত সব পাওয়া যায়। বেল্ট গুলো এর একটু মোটা হয় তবে পরে আরাম পাওয়া যায়। কেইডম্যান এর অনেক গুলো ঘড়িই এখন জল-রোধ ক্ষমতা রাখে তবে যেগুলো এই গুন দেয় না সে ঘড়িগুলোও ১ বছরের ভেতরে যতই হাত থেকে পরুক , বৃষ্টিতে ভিজুক এই ঘড়িগুলো নষ্ট হয় না। তবে কালো বেল্ট অনেক বেশি পরতে থাকলে অরথায় যদি কেও প্রতিদিনই এই ঘড়ি ব্যবহার করে তবে বেল্ট টি একটু ময়লা হবার আশঙ্কা থাকে। এর মূল্য ১৮০০ টাকা থেকে শুরু করে ২২০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

৪. নেভি ফোরস চেইন

নেভি ফোরস বর্তমান সময়ে যুবকদের মাঝে ব্যাপক চাহিদা। এক
সময়ে যারা সেইকো, এবং ক্যাসিও নিয়ে বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করত এই প্রজন্মে তারা নেভি
ফোরস নিয়ে এই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে, আর এই উচ্ছ্বাসের পেছনের কারণ হল নেভি ফোরসের
স্বল্প মূল্যের ভেতর তার আকর্ষণীয়তা এবং এর বৈচিত্রতা। তাছাড়া কেইডম্যানের মত এটিও
বেশ জনপ্রিয় হবার কারণ এটিও মেশিনের জন্যে ১ বছরের মত ওয়ারেন্টি দিয়ে থাকে। নেভি
ফোরসের মধ্যে চেইন, বেল্ট ক্রোনোগ্রাফ সবই পাওয়া যায়। যারা একটু ভারী ঘড়ি পরতে
পচ্ছন্দ করেন এবং ভারী ঘড়ি পরে অভ্যস্থ তাদের জন্য নেভি ফোরসের চেইনের ঘড়ি গুলো
প্রযোজ্য। নেভিফোরসের চেইন বেশ মজবুত এবং টেকশই। কোথাও কোনো ঘষা লাগলে দাগ চলে
যায়না তবে বাস হলে ভিন্ন কথা। এছাড়া বৃষ্টির পানি কিংবা হাতের ঘামে এর চেইন মোটেও
কোনো পরিবর্তন হয়না। ক্রয় করার পর থেকে এর রঙ ওঠে যায়না। নেভি ফোরসের চেইন এর ঘড়ি
প্রতি  যদি কারো আগ্রহ থাকে তাহলে এই ঘড়ি
কিনতে পারেন এবং এর জন্যে আগ্রহীর গুনতে হবে ১৬০০ টাকার অধিক হতে ২০০০ টাকা কিংবা
আরো বেশি। তবে ৩০০০ টাকার ভেতরে যেকোনো নেভি ফোরসের আসল ওয়ারেন্টি কার্ডসহ কিনতে
পাবেন।

Jumia Nigeria

৫. নেভি ফোরস বেল্ট

যারা বেশি ভারী ঘড়ি পছন্দ করেন না এবং সম্পূর্ণ অফিসিয়াল
ঘড়িও পছন্দ করেন না তাদেরকে নেভিফোরস নিরাশ করছে না। নেভিফোরস নিয়ে আসছে তাদের
জন্য আকর্ষণীয় সেমি ফরমাল অর্থাৎ যা অফিস কিংবা পারটি সব যায়গাতেই অনায়াসে পরতে
পারবে এমনব ঘড়ি। এই ঘড়িগুলোর মাঝে সময়ের পাশাপাশি বার ও দেয়া থাকবে তাছাড়া কিছু
ঘড়ি ভাছে যেগুলোতে ক্রোনগ্রাফ সুবিধাও রয়েছে। এগুলো সবই আসল ওয়ারেন্ট কার্ডসহ
বাজারে পাওয়া যায়। নেভিফোরসের বেল্ট এর অফিসিয়াল ফরমাল ঘড়িও রয়েছে এগুলোর ডায়াল
বেশ বড় ও মোটা প্রকৃতির। এই ঘড়িগুলো ১৮০০ থেকে ২৩০০ টাকার মধ্যেই পাওয়া যাবে।

ঘড়ি প্রেমিরা এখন আর ঘড়ি নিয়ে এত চিন্তিত হতে হবে না। নিজের জন্য হোক বা কাউকে উপহার হিসেবে দেয়ার জন্যে ঘড়ির থেকে উত্তম অপহার হতে পারে না। বাজারে অনেকেই ঘড়ি বিদেশ থেকে আমদানি করে তাদের সাথে যোগাযোগ থাকলে বা না থাকলে অনলাইন হোক বা যেকোনো উৎস থেকেই হোক এই ঘড়িগুলো সংরহ করতে পারেন তবে অবশ্যই ওয়ারেন্টি কার্ড দেখে কিনবেন।

Featured Image: Jumia Nigeria


Like it? Share with your friends!

0
Akash Das

0 Comments

Your email address will not be published. Required fields are marked *