নারীদের জন্য যে পাঁচটি ব্রান্ডের ঘড়ি অবশ্যই দেখা উচিত


0

সমাজে আমরা সব সময়
পার্থক্য করে থাকি। সব কিছুকেই একটি ছাঁচে রেখে চিন্তা করে থাকি। সমাজে ধনীরা কী
ব্যবহার করবে, গরীবরা কী ব্যবহার করবে কিংবা মধ্যবিত্তদের জন্য কী কী সুবিধা থাকবে
সবই আমরা নিজেরাই তৈরি করে থাকি। এমনই একটি ধারণা হলো, নারী ও পুরুষের প্রতি
দৃষ্টিভঙ্গি। আমরা কিছু জিনিস নারীদের জন্য বাধ্য করে দিই, কিছু জিনিস করে দিই
পুরুষদের জন্য। নারীদের পোশাক হবে আলাদা পুরুষদের হবে আলাদা। নারীরা যেমন চলা-ফেরা
করবে, আচার-আচরণ করবে পুরুষদের আচার-আচরণ হবে তার থেকে ভিন্ন।

Source: Jaztime.com

এসব কিছুর প্রভাব পড়েছে
নারী ও পুরুষের রুচি ও তাদের ব্যবহার্য জিনিসের উপরও। এরকম একটি রুচি ও ব্যবহারের
বস্তু হলো ঘড়ি। ঘড়ি কেবল সময় দেখার জন্যেই নয়, এটি এর সাথে
সৌন্দর্যবর্ধক ও সুরুচি প্রকাশের একটি মাধ্যমও। পুরুষদের মতো নারীদের জন্যও রয়েছে
ঘড়ি তবে তা সামাজিক কারণেই সবদিক থেকে ভিন্ন। আজকে আমরা নারীদের জন্য পাঁচটি ব্রান্ডেড
ঘড়ি নিয়ে জানব।

১. টিফানি অ্যান্ড কো. ও
পাতেক ফিলিপ্প টুয়েন্টি-৪

টিফানি অ্যান্ড কো. ও পাতেক ফিলিপ টুয়েন্টি-৪; Source: worthy.com

হীরা অনেকের কাছেই
প্রিয়। কেউ ব্রেস্লেট হিসেবে পরতে পছন্দ করে, কেউ গলার হার হিসেবে অথবা কেউ আংটি
হিসেবে পছন্দ করে। টিফানি অ্যান্ড কোম্পানি হলো এরকমই একটি বিখ্যাত অলঙ্কার
ব্র্যান্ড আর পাতেক ফিলিপ্প হলো ঘড়ির কোম্পানির মধ্যে সেরা। এই বিশ্ব বিখ্যাত
ব্রান্ড দুটি এক হয়ে কাজ করেছিল একটি ঘড়টি তৈরিরে যা টিফানি অ্যান্ড কো. ও পাতেক
ফিলিপ টুয়েন্টি-৪ নামে পরিচিত হয়।

ঘড়িটির বৈশিষ্ট্য

  • স্টেইনলেস স্টিলের কেইস ও স্টেইনলেস স্টিলের ব্রেস্লেট
  • স্টেইনলেস স্টিলের বেজেলটি ৩৪টি হীরা দ্বারা কাজ করা
  • লুমিনাস স্টিলের ডায়াল
  • ঘণ্টার দাগগুলো হীরক খচিত
  • ঘণ্টার দাগ ছয় ও বার; রোমান হরফে লেখা
  • ঘড়ির পিছন দিক পলিশ করা
  • ঘড়িটি আচড়-নিরোধি
  • ডায়ালের পরিমাপ ২৫ মিলিমিটার/৩০ মিলিমিটার
  • ডায়ালের চৌড়ত্ব ৬ মিলিমিটার

২.  রোলেক্স অয়েস্টার পারপিচুয়াল ডেটজাস্ট ৩১

রোলেক্স অয়েস্টার পারপিচুয়াল ডেটজাস্ট ৩১; Source: worthy.com

রোজ গোল্ড রঙটি এখন বেশ
জনপ্রিয়। এই রঙটি এতোটাই জনপ্রিয় যে, আইফোনের মতো ব্র্যান্ডও তাদের ফোনের রঙ এই
রোজ গোল্ড করেছে। তাছাড়া এই ঘড়িটি রূপালি রঙের মাঝেও রয়েছে। যেকোনো নারীর হাতে
মানানোর মতোই ঘড়ি এটি। তবে অবশ্যই যেহেতু রোলেক্স দাম তার আকাশ ছোয়া।

ঘড়িটির বৈশিষ্ট্য

  • স্বর্ণ ছাড়াও রয়েছে প্রয়োজন অনুপাতে বিভিন্ন উপাদান যেমন, রূপা, তামা ও প্লাটিনাম
  • হলুদ, সাদা ও রোজ গোল্ড রঙের মধ্যে এটি পাওয়া যায়
  • চেইন স্টেইনলেস স্টিলের তৈরি
  • ডায়ালের ভিতরে মুক্তা বসানো
  • মুক্তা নির্দিষ্ট আকার অনুযায়ী কাঁটা ও বসানো রোলেক্সের অনন্য বৈশিষ্ট
  • প্রেসিডেন্ট ব্রেস্লেট
  • রোলেক্স তাদের চেইনের স্টিলের প্রতি কোটি টাকা ব্যয় করে তাই ঘড়িগুলোর চেইনের উপর যত ঝড়-তুফানই যাক না কেন, নষ্ট হয় না
  • কেলিবার ২২৩৬ রোলেক্সের নতুন সংস্করণ
  • এর সাহায্যে ঘড়িটির মেকানিক্যাল আন্দোলন স্বয়ংক্রিভাবে হয়
  • সূক্ষ্ম তন্তুর ন্যায় সিলিকনের স্প্রিং রোলেক্সের অন্যতম বৈশিষ্ট। ঘড়িটির সব মিলিয়ে খুব চমৎকারভাবে কার্যকরী

৩. বুলগেরি সারপেন্টি
ইনক্যানটিটি

বুলগেরি সারপেন্টি ইনক্যানটিটি; Source: worthy.com

বুলগেরি ঘড়ির প্রিয়
প্রতীক হলো সাপ। এই সরীসৃপ প্রাণিটি নকশা হিসেবে তাদের অলঙ্কারগুলোর সৌন্দর্য
বৃদ্ধি করে। এটি তাদের ঘড়িতেই নয় বরং অন্যান্য ব্রেস্লেট ও গলার হারগুলোতেও এই
প্রতীক ব্যবহার করে থাকে। ১৯৪০ থেকে এই ব্র্যান্ডটি বেশ জনপ্রিয়। ইতালীয় এই
ব্র্যান্ডটি তাদের পৌরাণিক গল্পের প্রাণিটিকে নিজেদের প্রতীক হিসেবে নেয়। পুরাণ মতে
সাপ হলো, ক্ষমতা, শক্তি ও পুনর্জন্মের প্রতীক যা ইতালীয় ব্র্যান্ডটি বিশ্বব্যাপি
এটিকে জনপ্রিয় করে তুলেছে।

ঘড়িটির বৈশিষ্ট্য

  • সাপের মতো প্যাচানো আকার
  • ব্রেস্লেটটি হীরার গোলাকার ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পাথর দ্বারা
    সাজানো
  • ডায়ালটি গোলাকার তবে হীরাগুলো  প্যাচানো এবং সম্মুখের সাপের মাথার মতো দেখায়।
    দেখলে মনে হবে হাতে একটি হীরার সাপ।
  • ঘড়িটিতে সময় দেখাটা কতটুকু গুরুত্ব তা বোঝা যায় না
    কিন্তু অলঙ্কার হিসেবে এটি ব্যবহার করা যাবে এটা নিশ্চিত।
  • নারীদের অলঙ্কারই পছন্দ এই দৃষ্টিকোণ থেকেই এটি তৈরি।
    কিন্তু রোলেক্স, কারটিয়্যের ও অন্যান্য কিছু কোম্পানি রয়েছে যারা নারীদের জন্য
    উন্নত নকশার অলঙ্কার নয় কেবল ঘড়িইব তৈরি করে।

৪. জেয়গার আলট্রা থিন
রিভারসো ডুয়েট্টো

জেয়গার আলট্রা থিন রিভারসো ডুয়েট্টো; Source: worthy.com

১৯৩০ সালে এই ঘড়ির
আত্মপ্রকাশ ঘটে। প্রথমে এটি পরিবর্তনযোগ্য স্পোর্টস ঘড়ি হিসেবে বাজারে এসেছিল। রিভারসোর
৮৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে এই কোম্পানিটি তাদের ভক্তদের জন্য বাজারে ছেড়েছিল ‘সংগ্রাহকদের
পছন্দ’ শীর্ষক একটি ঘড়ি। এই ঘড়িটিই হলো জেয়গার আল্ট্রা থিন। ঘড়িটির কেইসটি ঘুড়িয়ে
পরিবর্তন করা যায়। ঘড়িটির এরকম নকশার পিছনে কারণ ছিলোব পলো ম্যাচ। পলো খেলার সময়
যেন ঘড়ির ডায়ালের কোন ক্ষতি না হয় তাই ঘড়িটিকে রক্ষা করার জন্যে এই ঘড়িটির এমন
নকশা করা হয়েছিল।

ঘড়িটির বৈশিষ্ট্য

  • ডায়ালের আকার আয়তাকার
  • কেইসের পরিমাপ ২৪ মিলিমিটার/৪০ মিলিমিটার
  • কেইসটি ৯.৩ মিলিমিটার প্রশস্ত
  • ১৮ কেরেটের সাদা-স্বর্ণের তৈরি
  • সব ধরনের আচড়-নিরোধী

৫. ওডেমারস পিগে রয়্যাল
ওক অফশোর ক্রোনোগ্রাফ

যেসকল নারীরা স্পোর্টস ঘড়ি পরতে আগ্রহ প্রকাশ করেন, তাদের জন্য ওডেমারস পিগে রয়্যাল ওক অফশোর ক্রোনোগ্রাফ হতে পারে মানানসই ঘড়ি। এর ৩২টি কাটা হীরার নকশা ঘড়িটিকে দারুণ রূপ দেয়।

ঘড়িটির বৈশিষ্ট্য

  • ব্রেসলেটটি রাবারের তৈরী
  • অ্যানালগ ঘড়ি, এর ঘণ্টার দাগ চার ও পাঁচ এর মধ্যে
    তারিখের ঘর করা
  • ৪০ ঘণতার শক্তি সঞ্চয় করে রাখতে পারে

নারীদের জন্যে এছাড়াও
আরো অনেক বিলাসবহুল ঘড়ি রয়েছে। এই পাঁচটি অথবা এদের মধ্যেই একটি হতে পারে আপনার
পছন্দের।

তথ্যসূত্র-

১. https://www.worthy.com/blog/knowledge-center/watches/womens-luxury-watches/

২. http://www.thejewelleryeditor.com/shop/product/bulgari-serpenti-tubogas-35mm-watch-steel-pink-gold/

৩. https://www.townandcountrymag.com/style/jewelry-and-watches/g22565958/best-watches-for-women/

ফিচার ছবি- Jaztime.com


Like it? Share with your friends!

0
Sohag Alom

0 Comments

Your email address will not be published. Required fields are marked *