রবার্ট ডাউনি জুনিয়রের কাছে আছে যে ৮টি ঘড়ি – ঘড়ি


0

যারা সুপার হিরো ফিল্ম পছন্দ করেন তাদের কাছে আয়রন ম্যান ভক্ত হবে না এমন
লোকজন পাওয়া দুষ্কর। আজকে আমরা আমাদের প্রিয় আয়রন ম্যান অর্থাৎ রবার্ট ডাউনি
জুনিওরের ঘড়ি সংগ্রহ দেখব।

rdj-chillin-768x432.jpg

১. ব্রেইটলিং পাথফাইন্ডার

timeandtidewatches.com

এই ঘড়িটি শুটিং এর সময় প্রপ হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছিল বলেও অনেকের ধারণা। শুটিং শেষে রবার্ট ডাউনি জুনিওর এটি তার বাড়িতে নিয়ে আসেন। তবে রবার্ট নিজের এটি কোথায় পেয়েছের এর কোন সঠিক ধারণা
দিতে পারেন নি। এটি একটি সুইস ঘড়ি। এি কোম্পানিটি ১৮৮৪ সালে লিও ব্রেইটলিং
প্রতিষ্ঠা করে। এই ঘড়িটি সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আসে কারণ পাথফাইন্ডার ধারার ঘড়ি এখন
আর পাওয়া যায় না। তাই ধারণা করা হয় রবার্ট এর নিকট নকল ঘড়ি আছে।

২. জেগার লে’কুত

jaztime.com

এই ঘড়িটি রবার্ট আয়রন ম্যান ২ এর শুটিং এর সময় পরেছিলেন। রবার্ট বলেন, “এটি খুব সম্ভবত আমার সবচেয়ে পছন্দের ঘড়ি”। এর পেছনে কারনও আছে কেননা ঘড়িটিতে কালো সিরামিক এবং প্লাটিনামের কাজ রয়েছে। ঘড়িটির ভেতরের কারিগরি কাজ দেখা যায়। এই ঘড়িতে তারিখ দেয়া আছে এবং এর সাথে জিএমটি ব্যবস্থাও রয়েছে। এর মূল্য প্রায় ৯২হাজার মার্কিন ডলার বাংলাদেশি টাকায় ৭৮ লক্ষ ২০ হাজার যা আয়রন ম্যানের দামি ঘড়িগুলোর মাঝে অন্যতম।

৩. ওমেগা স্পিডমাস্টার ক্রোনোগ্রাফ

jaztime.com

এটি চাঁদের ঘড়ি নামেও পরিচিত। ইতিহাসে এই ঘড়ির এক বিশেষ জায়গা রয়েছে। কারণ
বাজ অল্ড্রিন চাঁদের মাটিতে পা রাখার সময় এটি পরে ছিলেন। এর কেস এর পরিমাপ ৪২
মিলিমিটারের এবং এটি পুরোটাই স্টেইনলেস স্টিল দিয়ে তৈরি। ঘড়িটির দাম ৩৫০০ মার্কিন
ডলার বাংলাদেশি টাকায় বর্তমান মূল্য ২লক্ষ ৯৭ হাজার ৫শত টাকা।

৪. কাস্টম রোলেক্স জিএমটি মাস্টার২ ‘ঘোস্ট’

jaztime.com

এটি ব্যামফোরড ঘড়ি কর্তৃক প্রযোজিত করা হয়েছিল। রবার্ট ডাউনি জুনিওর দুইটি
একই রকম ঘড়ি নিয়েছিল। একটি এক বন্ধুকে তিনি উপহহার দেন ও একটি নিজের কাছে রাখেন। হীরার
মত কার্বন দ্বারা তৈরি ঘড়িটি মোটরযান চালাবার সময় নিরাপদে ব্যবহার করা জেট। এর
আরেকটি ভালো দিক রয়েছে যে এটি পরলে এলারজি জনিত কোন সমস্যা হয় না। এর মূল্য ১৭,৮২৫
মার্কিন ডলার যার বর্তমান মূল্য ১৫ লক্ষ ১৫ হাজার ১২৫ টাকা।

৫. রোলেক্স সাবমেরিন ‘হাল্ক’ রেফেরেন্স ১১৬৬১০ এলভি

timeandtidewatches.com

রোলেক্স সাবমেরিন রোলেক্স এর অন্যতম প্রধান ঘড়িগুলোর মধ্যে একটি যা নিয়ে
বেশ আলোচনা হইয়েছে। এি ধারারই সবচেয়ে বিখ্যাত হয়েছে এটি। অফিসিয়ালি এটিকে সাবমেরিন
“হাল্ক” রেফ ১১৬৬১০এলভি বলে। রবার্ট ডাউনি জুনিওর এটিকে “গ্রিন মানি রোলেক্স” বা
“সবুজ টাকা র‍্যোলেক্স” নামে পরিচয় দেন যদিও এটি “হাল্ক সাবমেরিন” নামেই বেশি
পরিচিত। যদি এর বাহিরের কাঠামো নইয়ে বলি তাহলে ঘড়িটির ডায়াল সবুজ এবং সবুজ সিরামিক
দিয়ে বেজেল নকশা করা। এটি ২০১০ সালে খুব জনপ্রিয় রেফ, ১৬৬১০এলভি এর পঞ্চাশতম
প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে এর উত্তরাধিকারস্বরূপ উদ্ভোদন করা হয়। হাল্ক সাবমেরিনের
মূল্য ৯হাজার ৫০ মার্কিন ডলার জার বর্তমান মূল্য ৭ লক্ষ ৪২ হাজার ৫০০ টাকা।

৬. বোমে ও মারসিয়ার, হ্যাম্পটন শহর

jaztime.com

এই ঘড়িটি রবার্ট ডাউনি জিনিওর এর কাছে খুবই মূল্যবান, কেনই হবে না কারন এর
সাথে তার অনেক স্মৃতি জড়িত আছে।  এই ঘড়িটি
রবার্টের দাদার থেকে প্রাপ্ত। ঘড়িটি স্টেইনলেস স্টিলের তৈরি এর রেফেরন্স নং ৮৩৪০।
এর কেইস এর পরিমাপ ৪২/৩৯ মিলিমিটার। ঘড়িটিতে স্বয়ংক্রিয় ভাবে চলার ব্যবস্থা রয়েছে।
এ ছাড়াও ঘড়িটি পানির সর্বোচ্চ ৩০ মিটার পর্যন্ত 
জল-রোধ ক্ষমতা সম্পন্ন। এটি এখন কোথাও পাওয়া যায়না।

৭. বেল ও রোজ বিআর ০১-৯৪ টাইটেনিয়াম ওর‍্যাঞ্জ

jaztime.com

এই ঘড়িটিকে বেল ও রোজ কার্বন অর‍্যাঞ্জ নামেও পরিচিত। টাইটেনিয়ামের তৈরি এগ
ঘড়িটির ডায়াল বর্গাকৃতির দেখতে। এর ভেতরের অংশ কালো এবং কালোর মাঝে কমলা রঙের
উজ্জ্বল কাটা বিদ্যমান।  এটি বেশ আধুনিক
দেখতে। কালোর মাঝে কমলা রঙের কাটাগুলো যেকোনো হাতেই খুব সুন্দরভাব ফুতে ওঠে। এটি
বেশ বড় মাপের ঘড়ি এর কেইস এর পরিমাপ ৪৬ মিলিমিটাররে মত। এর বেল্ট টি রাবারের তৈরি।
রবার্ট জানান যে, এ ঘড়িটি “ট্রপিক থান্ডার সিনেমার পরে অভিনেতা  বেন স্টিলার তাকে উপহার দিয়েছিলেন দিয়েছিলেন। এর
বর্তমান বাজার মূল্য ৩ হাজার থেকে ৫ হাজার মার্কিন ডলার যা বাংলাদেশি টাকায় ২ লক্ষ
৫৫ হাজার থেকে ৪ লক্ষ ২৫ হাজার টাকার মত।

৮. পাতেক ফিলিপ্প নোটিলাস মুনফেইজ রেফারেন্স ৩৭১২

jaztime.com

এই ঘড়িটি হল রবার্ট ডাউনি জুনিওর এর দ্বিতীয় পছন্দের ঘড়ি। ঘড়িটি স্টেইনলেস
স্টিলের তৈরি যার কেইস এর পরিমাপ ৪২ মিলিমিটার এবং এটিতে মুন ফেইজ বা চাঁদ
নির্দেশক আছে যার মানে রাতের সময় চাঁদ এর একটি চিহ্ন দেখা যাবে যেমন মেঘের পাশে
চাঁদ দেখা যায় ঠিক তেমন। এটি রেফারেন্স ৫৭১২ মডেল এর পূর্বপুরুষ। এই ঘড়িটি
রবার্টের স্ত্রী সুজান ডাউনি তাকে উপহার হিসেবে দিয়েছিলেন। তিনি একটি মজার ঘটনা
বলেন যে তার স্ত্রী যখন তাকে এই ঘড়িটি দেয় তখন তিনি ভেবেছিলেন যে এটি সিকো ঘড়ি। পাতেক
ফিলিপ্প নোটিলাস মুন ফেইজ রেফারেন্স ৩৭১২ এর মূল্য ৩৩ হাজার ২ শত মার্কিন ডলার যার
বর্তমান বাংলাদেশি টাকায় ২৮ লক্ষ ২২ হাজার টাকা।

এই ছিল আমাদের প্রিয় আয়রন ম্যান রবার্ট ডাউনি জুনিয়র এর ঘড়ি সংগ্রহ, যেখানে রাস্তা থেকে পাওয়া ঘড়ি থেকে তার দাদার দেয়া বোনে ও মারসিয়ার এবং তার স্ত্রীর দেয়া পাতেক ফিলিপ্প ও রয়েছে।   

Featured Image: jaztime.com


Like it? Share with your friends!

0
Sohag Alom

0 Comments

Your email address will not be published. Required fields are marked *